Breaking News

আমার ফোকাস ছিল বাবার স্বপ্নকে পূর্ণ করা-ঃ মোহাম্মদ সিরাজ

বাবার স্বপ্ন ছিল ছেলে জাতীয় দলের হয়ে খেলবে। অনেক পরিশ্রমের পর ছেলে সেই স্বপ্ন সত্যিতে পরিণত করেছে। কিন্তু সেই আনন্দের মুহূর্তে দেখার জন্য বাবা জীবিত ছিলেন না! বাবার মৃত্যুশোক বুকে নিয়ে অস্ট্রেলিয়ায় বল হাতে ঝড় তুলেছেন মোহাম্মদ সিরাজ। ঐতিহাসিক টেস্ট সিরিজ জিতে দেশে ফিরে এবার তিনি গেছেন বাবার কবরের পাশে। গত ২০ নভেম্বর বাবার মৃত্যুসংবাদটা অস্ট্রেলিয়ায় বসে পেয়েছিলেন সিরাজ। কিন্তু মহামারীর কারণে বদলে যাওয়া পৃথিবী তাকে বাবার শেষকৃত্যে থাকতে দেয়নি। কারণ তখন অস্ট্রেলিয়া থেকে দেশে ফিরলেও কোয়ারেন্টিনের কারণে সেখানে যাওয়ার সুযোগ ছিল না তার। তাই থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন সিরাজ।

অস্ট্রেলিয়াকে তাদের মাটিতে টেস্ট সিরিজে হারিয়েই দেশে ফিরলেন এ পেসার। আর ফিরেই বাবার সমাধিতে চলে যান সিরাজ। বাবাকে স্মরণ করে বললেন, ‘এটা একটি কঠিন পরিস্থিতি ছিল, বাবার মৃত্যু। আমি মায়ের সাথে কথা বলার পরে শক্তি ফিরে পেয়েছিলাম এবং আমার ফোকাস ছিল বাবার স্বপ্নকে পূর্ণ করা। তাদের সমর্থন নিয়ে আমি মানসিকভাবে দৃঢ় হয়েছি। আমি অনুভব করেছি যে বাবার ইচ্ছা যা ছিল তা আমাকেই পূরণ করতে হবে। এটা পূরণ হয়েছে।’

গাব্বা টেস্টের চতুর্থ দিনে পাঁচ উইকেটসহ মোট ১৩টি উইকেট শিকার করেছেন সিরাজ। আগের ম্যাচে সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে জাতীয় সংগীত চলাকালীন সময়ে আবেগাপ্লুত হতে দেখা গিয়েছিল এ ২৬ বছর বয়সী পেসারকে। সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশিত একটি ভিডিওতে দেখা যায়, সে সময়ে চোখের জল মুছছিলেন তিনি।

এসসিজিতে একই ম্যাচে, জাসপ্রিত বুমরাহর সঙ্গে বর্ণবাদের শিকারও হয়েছেন সিরাজ। দৃঢ় সংকল্প দেখিয়ে অবশ্য অবিলম্বে কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানিয়েছিলেন তিনি। পরে এসসিজি থেকে ছয় জন দর্শককে বহিষ্কার করা হয়েছিল।

About admin

Check Also

টেস্ট ক্রিকেটে সর্বোচ্চ ট্রিপল সেঞ্চুরি হাকিয়েছে যে ৮ দল

টেস্ট খেলাকে ক্রিকেটের সেরা ফর্ম্যাট হিসেবে বেছে নেওয়া হয়। খেলোয়াড়দের আসল দক্ষতার পরিচয় পাওয়া যায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *