আমিই এদেশে একমাত্র ক্রিকেটার যার ঢাকা শহরে কোন বাড়ী নেই

খালেদ মাহমুদ সুজন নামটি খুব পরিচিত। বাংলাদেশের ক্রিকেটে ব্যাট বল হাতে দেশকে এনে দিয়েছেন বহুসম্মান। এখনও কাজ করছেন ক্রিকট নিয়ে। ক্রিকেটের উন্নয়নেই যেন তার শান্তি। তবে তার সব কর্মকাণ্ড নিয়েই যেনো আলোচনা-সমালোচনার কোন শেষ থাকে না। বিশেষ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাকে নিয়ে চলতে থাকে একেরপর এক ট্রল। সেই কারণেই এবার খেপেছেন সুজন। এই সব বাজে ট্রল যারা করেন তাদের উদ্দেশ্যে সুজন বলেন, যদি কারও সাহস থাকে তাহলে আমার সামনে এসে যেন কথা বলে। আমাকে নিয়ে যারা ট্রল করে তারা আসলেও ভালো পরিবারের মানুষ নয়। তারা পারিবারিক শিক্ষা পায়নি এটা নিশ্চিত।

তিনি বলেন, অনেকে মনে করেন আমি মনে হয় বিসিবি লক্ষ লক্ষ টাকা হজম করছি। কিন্তু আমার সামনে এসে দেখে যেতে পারেন আমি কিভাবে চলি , কি খাই কি পরি। আমার মনে হয় আমিই এদেশে একমাত্র ক্রিকেটার যার ঢাকা শহরে একটি বাড়ী নেই। খোজ নিয়ে দেখেন প্রতিটা ক্রিকেটাররেই পূর্বাচলে জমি আছে কিন্তু আমার কিন্তু কোন জমি নেই। ঢাকা শহরে আমার কিছু নাই।

তিনি আরও বলেন, বিসিবি ও বোক্সিমকো থেকে আমি যে বেতন পাই সেটা আমার চলার জন্য খুব প্রয়োজন। আসলে আজকে আমি সব কথাই রাগ থেকে বলছি। আমার সম্পর্কে না জেনে এমন সব মন্তব্য করছেন কেনো আপনারা। ফেসবুক খুললেই আমাকে নিয়ে ট্রল চোখে পরে। দেশের একটি অনলাইন গণমাধ্যমের সাথে এসব কথাই বলেছেন বাংলাদেশ দলের সাবেক ক্রিকেটার ও বোর্ড ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন। তিনি বলেন, সারাদিন যারা আমাকে নিয়ে পরে থাকে তারা আসলেই বেকার। তাদের কোন কাজ নাই।

আমি তো কোন ব্যবসা করি না, সকালে ঘুম থেকে উঠে ক্রিকেট নিয়ে চিন্তা করি। রাতে ঘুমাবার যাবার আগেও ক্রিকেট নিয়ে চিন্তা করি। তারপরও সবাই আমাকে নিয়ে ট্রল করে। অন্য ক্রিকেটারদের মত ব্যবসা নিয়ে ব্যাস্ত আমি থাকি না।-যমুনা টিভি

About admin

Check Also

আমার খুব জল তেষ্টা পাচ্ছে আর খিদে পাচ্ছে-ঃ ওয়ার্নার

সানরাইজার্স হায়দরাবাদ আইপিএলের শুরুটা মোটেও ভাল করেনি। এতে অবশ্য দলের সংহতিতে এতটুকু চিড় ধরেনি। যে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *