মেসির ৩ রেকর্ড

দারুণ ফ্রি কিকে পথ দেখালেন লিওনেল মেসি। কিন্তু সুযোগ নষ্টের ভিড়ে অধিনায়কের গড়ে দেওয়া ভিত কাজে লাগাতে পারল না আর্জেন্টিনা। উল্টো বিরতির পর হারাল ছন্দ, সেই সুযোগে মূল্যবান একটি পয়েন্ট তুলে নিল চিলি।রিও দে জেনেইরোর নিল্তন সান্তোসে বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার ভোরে কোপা আমেরিকায় ‘বি’ গ্রুপের ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হয়েছে। পিছিয়ে পড়ার পর সমতা টানেন এদুয়ার্দো ভার্গাস। আক্রমণাত্মক কৌশলে ম্যাচের প্রায় পুরোটা সময়ই আধিপত্য দেখায় আর্জেন্টিনা। তারা যা একটু ছন্দ হারায় দ্বিতীয়ার্ধের শুরুর ভাগে, আর ওখানেই মহামূল্যবান গোলটা আদায় করে নেয় চিলি।

বল দখলে সামান্য পিছিয়ে থাকা আর্জেন্টিনা গোলের উদ্দেশে মোট ১৮টি শট নেয়, যার পাঁচটি ছিল লক্ষ্যে। বিপরীতে, চিলির মোট পাঁচ শটের চারটিই লক্ষ্যে। তবে দারুণ সেই ফ্রি কিক গোলে দুটি নতুন রেকর্ড গড়েন মেসি। প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে এখন দেশের হয়ে মেসিই সর্বোচ্চ গোলদাতা। এর আগে পূর্বসূরি গ্যাব্রিয়েল বাতিস্তুতার রেকর্ডটি স্পর্শ করেছিলেন মেসি। এদিন সেই ফ্রিকিক গোলে বাতিগোলকে ছাড়িয়ে যান আর্জেন্টাইন অধিনায়ক।

এদিনের গোল নিয়ে প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে ৩৯টি গোল হলো মেসির। মোট ৯৮টি ম্যাচ খেলে এ গোলগুলো করেছেন এ তারকা।। যার ছয়টি এসেছে বিশ্বকাপে, ২৩টি বাছাই পর্বে এবং ১০টি কোপা আমেরিকায়। বাতিস্তুতার গোল সংখ্যা ৩৮টি।

এছাড়া আরও একটি ঐতিহাসিক রেকর্ড গড়েছেন মেসি। এতোদিন আর্জেন্টিনার হয়ে আমেরিকো তেসোরিয়েরে ছিলেন একমাত্র খেলোয়াড় যিনি খেলেছিলেন ছয় কোপা আমেরিকায়। ১৯২০, ১৯২১, ১৯২২, ১৯২৩, ১৯২৪ ও ১৯২৫ সালের কোপায় অংশ নিয়েছিলেন এ সাবেক গোলরক্ষক। আর মেসি ২০০৭, ২০১১, ২০১৫, ২০১৬, ২০১৯ ও ২০২১ সালের কোপায় অংশ নিয়ে এ রেকর্ড স্পর্শ করেন।

এছাড়া সময়ের অন্যতম সেরা প্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোকেও ছাড়িয়েছেন মেসি। ফ্রি কিক গোলের এতো দিন রোনালদোর সমান ৫৬টি গোল ছিল তার। এদিন ৫৭তম ফ্রি কিক গোল পেলেন এ বার্সেলোনা তারকা।

About admin

Check Also

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা-ঃ অলিম্পিকে সোনা জয়ে এগিয়ে কোন দল ?

জাপানের রাজধানী টোকিওতে শুরু হয়ে গেছে অলিম্পিক গেমস। এই আসরে অন্যান্য ইভেন্টের মতো রয়েছে ফুটবল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *