Breaking News

আইপিএলে লজ্জার রেকর্ড গড়লেন কেকেআর অধিনায়ক

দলকে আইপিএল ফাইনালে তুললেও কলকাতার অধিনায়ক ইয়ন মরগানের ব্যক্তিগত পারফরম্যান্স এক কথায় জঘন্য। এতোটা অফফর্মের কোনো অধিনায়ক হতে পারেন তা অনেকেরই ছিল অজানা।ম্যাচে ব্যাট হাতে নামলেই লজ্জার নজির গড়ে সাজঘরে ফিরেছেন তিনি। কী ভারতে কী আরব আমিরাতে। এবারের আইপিএলের দুই পর্বেই ব্যর্থ তিনি।শেষ ১০ ইনিংসে মরগানের সংগ্রহ – ০, ৭, ৮, ০, ২, ২, ১৩, ৫, ০, ৪।

এমন বাজে পারফর্মের জন্য মরগানের অধিনায়কত্ব কেড়ে নেওয়ারও দাবি উঠেছিল। এরপরও ভাবা হচ্ছিল শুক্রবারের ফাইনালে হয়ত ব্যাট হাতে নিজেকে মেলে ধরবেন মরগান। গোটা মৌসুমের লজ্জা নিবারণ করবেন গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচে। সেই সুযোগটাও এসেছিল তার।

দুই ওপেনার শুবমান গিল ও ভেঙ্কেটশ আইয়ার দুর্দান্ত দুই ফিফটি করে সাজঘরে ফিরলে দ্রুতই দুটো উইকেট পড়ে যায় কলকাতার। নিতিশ শূন্য রানে আর সুনীল নারিন ২ রানে ফেরেন। তখন পুরো দায়িত্ব এসে বর্তায় মরগানের কাঁধে। মরগানের সামনে তখন বিশাল লক্ষ্য। জয়ের জন্য করতে হবে ৩৬ বলে ৭২ রান।

কিন্তু সেই লক্ষ্যের তাড়ায় মাত্র ৪ রান করলেন মরগান! অর্থাৎ কেকেআর অধিনায়কের লজ্জার তালিকা আরও দীর্ঘ হল। এর সঙ্গে লজ্জার একটি রেকর্ডও নিজের করে নিলেন এই ইংলিশ তারকা। আইপিএলের ইতিহাসে কোনো মৌসুমে ন্যূনতম ১০ ইনিংসে অধিনায়কদের মধ্যে সবথেকে খারাপ ব্যাটিং গড়ের ‘নজির’ গড়েছেন কেকেআর অধিনায়ক।

চলতি মৌসুমে ১৭ ম্যাচে ১৬ ইনিংস খেলে ১৩৩ রান করেছেন নাইট অধিনায়ক। যার গড় মাত্র ১১.০৮। যা কিনা হরভজন সিং এবং শেন ওয়ার্নের মতো বোলার অধিনায়কের থেকেও কম।

২০১২ সালে হরভজনের গড় ছিল ১২। ১৭ ম্যাচে ১১ ইনিংস খেলে ১০৮ রান করেন এই স্পিনার। তার সর্বোচ্চ রান ছিল ৩৩। ২০০৯ সালে রাজস্থান রয়্যালসের অধিনায়ক শেন ওয়ার্নের ব্যাটিং গড় ছিল ১৩.৫ ছিল। ১৩ ম্যাচে ১১ ইনিংসে ১০৮ রান, সর্বোচ্চ অপরাজিত ৩৪।

আর এখানেই সবচেয়ে বড় লজ্জা মরগানের। রোহিত, ধোনি, কোহলিদের মতো স্বীকৃত ব্যাটার অধিনায়কদের সঙ্গে তুলনা তো বহু দূরের বিষয়, হরভজন এবং ওয়ার্নের মতো বোলার অধিনায়করাও ব্যাট হাতে মরগানের চেয়ে বেশি রান করেছেন।এমন বাজে পারফরম্যান্সের পর মরগানকে পরের আইপিএলে অধিনায়ক তো দূরের কথা নিলামেই কেউ নেবে কি না সে প্রশ্ন উঠতেই।

About রাসেল আহমেদ

Check Also

এখান থেকে ম্যাচ বাঁচানো সম্ভব, অসম্ভব কিছু না

বৃষ্টিভেজা ম্যাচ। আজ চতুর্থ দিনের খেলাটাই যা অনুষ্ঠিত হলো। প্রথম দিন খেলা হয়েছে ৩৩ ওভার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *