প্রেমিকার রান্না খাওয়ার ভয়ে গোল করেন ভালভার্দে

গোল করে প্রেমিকা, স্ত্রী কিংবা প্রিয়জনকে উৎসর্গ করতে হামেশাই দেখা যায়। কিন্তু প্রেমিকার হাত থেকে বাঁচতে গোল! বলা ভালো প্রেমিকের তৈরি করা খাবারের থেকে বাঁচতে গোল! ইতিপূর্বে এমন ঘটনার কথা কেউ কখনও শুনেছেন বলে মনে হয় না। সম্প্রতি এমনই ছবি দেখা গেল রিয়াল মাদ্রিদের সেন্ট্রাল ফেদে ভালভার্দের ক্ষেত্রে। স্প্যানিশ সুপার কাপে সেমিফাইনালে বার্সেলোনার বিপক্ষে রিয়াল মাদ্রিদের ৩-২ গোলে জয়ের পর বিষয়টি বিষয়টি বুঝতে পারেন ফুটবলপ্রেমীরা।

ফেদে ভালভার্দের প্রেমিকা মিনা বেনিনো। সোশ্যাল মিডিয়ায় দুজনেই সম্পর্ক নিয়ে খোলামেলা। মিন বেনিনো পেশায় একজন রিপোর্টার। তবে তিনি ফুটবলের ভক্ত। রিয়াল মাদ্রিদের ম্যাচ থাকলে প্রেমিকার থেকে বেশ চাপে থাকেন ভালভার্দে। কারণ গোল না করতে পারলেই তাঁকে প্রেমিকার হাতের রান্না খেতে হবে।

সম্প্রতি হোয়াটসঅ্যাপে ফেদে ভালভার্দকে পাঠানো বার্তার স্ক্রিনশট তিনি পোস্ট করেন টুইটে। সেখানে লেখা, ‘মাঠে নেমে যদি গোল করতে না পার, তাহলে প্রতিদিন আমার হাতের রান্না খেতে হবে। একটু ভেবে দেখো, সেটা কেমন হবে।’ এই লাইনের মাধ্যমে বোঝা যাচ্ছে মিনা রান্নায় কতটা দক্ষ!

বৃহস্পতিবারের ম্যাচে শেষ মুহূর্তে গোল করে দলকে জেতান ভালভার্দে। ৯৮ মিনিটের মাথায় ২-২ থেকে তিনি রিয়াল মাদ্রিদের পক্ষে ২-৩ গোল করেন। জয়সূচক গোলটি করেন তিনি। যার সঙ্গে রিয়াল মাদ্রিদ জেতে স্প্যানিশ সুপার কাপ। রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে গোলগুলি করেন, ভিনি জুনিয়র, করিম বেঞ্জিমা, ভালভার্দে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিয়ো ভাইরাল হয়। যেখানে দেখা যায়, নিজের ঘরে বসে এল ক্লাসিকো দেখছেন মিনা। ভালভার্দের জয়সূচক গোলের পর তিনি সোফার উপর লাফিয়ে ওঠেন। এরপর জার্সি খুলে তিনি ঘোরাতে থাকেন।

আর্জেন্তিনার বাসিন্দা মিনা ২০১৯ সাল থেকে মাদ্রিদে বসবাস করছেন। তিনি রিভার প্লেট ক্লাবের সমর্থক। গত বছর কোপা লিবার্তোদোরেস সেমিফাইনালে পালমেইরাসের মুখোমুখি হয় আর্জেন্টাইন ক্লাবটি।

About রাসেল আহমেদ

Check Also

নেইমারের জীবনী-ঃ নিন্দুকদের দৃষ্টিভঙ্গি পাল্টে দিবে

ক্রিকেট ফুটবলে ঝেলোয়াড়দের বায়োগ্রাফী নিয়ে সিনেমা, ডকুমেন্টারি নতুন কিছু নয়। তবে এবার ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমারের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *